Uncategorized

এই যানবাহন দিয়ে মাত্র ১৫ টাকায় যাওয়া যাবে ৩০০ কিলোমিটার

লাইফস্টাইল ডেস্ক : ভারত এমন একটি দেশ যেখানে প্রতিভার অভাব নেই এবং সম্প্রতি এই ধরনের প্রতিভার একটি নমুনা আবারও সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখা গেছে। আনন্দ মাহিন্দ্র নিজেই একটি খুব সুন্দর ভিডিও শেয়ার করেছেন যাতে ৬ জন ছেলেকে একটি মোটরসাইকেল চালাতে দেখা যাচ্ছে এবং তাদের সবাই খুব সাবলীলভাবে ৬ সিটার মোটরসাইকেল চালাচ্ছে।

যানবাহন

আপনাদের জানিয়ে রাখি, এই ছয়টি ছেলেরা তাদের দেশী জুগাড় দিয়ে এই মোটরসাইকেলটি তৈরি করেছে যার দাম মাত্র ১৫,০০০ টাকা। পাশাপাশি, আপনাদের জানিয়ে রাখি, এই গাড়িটি খুব কম খরচে প্রায় ৩০০০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করেছে যা দেখে আনন্দ মাহিন্দ্রাও এই সব ছেলেদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ কোম্পানি মোটরগাড়ি নির্মাতা কোম্পানি মাহিন্দ্রা মোটরসের মালিক আনন্দ মাহিন্দ্রা সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন, যেখানে গ্রামের ৬ জন ছেলেকে দেখা যাচ্ছে, তারা একসাথে একটি বড় মোটরসাইকেল চালাচ্ছে৷ আনন্দ মাহিন্দ্রাকে এই মুহূর্তে বিশ্বের অন্যতম বড় শিল্পপতি হিসাবে বিবেচনা করা হয়। তবে, শুধু শিল্পপতি হিসেবে নয়, মানুষ হিসেবেও তিনি খুবই ভালো।

যখনই কেউ নিজের প্রচেষ্টায় কোন অসম্ভবকে সম্ভব করে ফেলে, তখনই তিনি তাদেরকে সমস্ত সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন। সেরকমই তিনি এবারও করলেন। তিনি নিজে এই তরুণদের এত প্রশংসা করেছেন, এই তরুণরাও এর ফলে বেশ উত্তেজিত হবে। এই ৬ জন শিশু মিলে তাদের দেশীয় জুগাড় দিয়ে একটি ৬ আসনের মোটরসাইকেল তৈরি করেছে, যেটিতে বসে যে কোনও ব্যক্তি মাত্র ১০ থেকে ১৫ টাকা খরচ করে ৩০০ কিলোমিটার পর্যন্ত ভ্রমণ করতে পারে। আসুন আমরা আপনাদের জানাই, কীভাবে শিল্পপতি আনন্দ মাহিন্দ্রা এই তরুণদের প্রশংসা করেছেন।

সম্প্রতি আনন্দ মাহিন্দ্রা তার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন সুন্দর ভিডিওটি। আনন্দ মাহিন্দ্র নিজেই এই ছয় তরুণের জন্য লিখেছেন যে, গ্রামের এই শিশুরা এমন আবিষ্কার করতে পারে তা অবিশ্বাস্য! এই ছেলেরা এমন একটি অসাধারণ গাড়ি তৈরি করেছে, যা চালিয়ে আপনি মাত্র ১৫ টাকায় ৩০০ কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে পারবেন। আনন্দ মাহিন্দ্রার শেয়ার করা এই ভিডিওটিকে লক্ষ লক্ষ লোক লাইক করতে শুরু করেছেন।

এমন কোন জায়গায় যাওয়ার গাড়ি আছে কিন্তু আসার গাড়ি নেই

সকলেই বলছেন, যদি এই ছেলেরা আরও ভাল সংস্থান পায় তবে তারা ভবিষ্যতে এই ধরনের আরও লাভজনক জিনিস তৈরি করতে পারে। আনন্দ মাহিন্দ্রা সবসময় তার সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ধরনের তরুণ প্রতিভাদের শেয়ার করেন এবং এই ঘটনা নতুন কিছু না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button